সর্বশেষঃ

গ্রামীণফোন কলড্রপের জন্য টকটাইম দেওয়া শুরু করেছে

গ্রাহকদের প্রথম কলড্রপের বিপরীতে জিপি-জিপি টকটাইম ফেরত দেওয়া শুরু করেছে গ্রামীণফোন। বুধবার দিবাগত রাত ১২টার পর (২৯ সেপ্টেম্বর) থেকে টকটাইম ফেরত দেওয়া শুরু হয়েছে। জিপি-জিপি কলড্রপের কারণে সৃষ্ট অসুবিধার সম্মুখীন হওয়ায় গ্রাহকেরা এ টকটাইম পাবেন। গ্রামীণফোন আজ বৃহস্পতিবার এ কথা জানিয়েছে।

এক বিজ্ঞপ্তিতে দেশের অন্যতম মুঠোফোন অপারেটর গ্রামীণফোন বলেছে, গ্রাহকদের সেবার অভিজ্ঞতার মানোন্নয়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ গ্রামীণফোন। নিজেদের নেটওয়ার্কে সর্বোত্তম সেবার অভিজ্ঞতা নিশ্চিতে প্রতিষ্ঠানটি নিরলস কাজ করে চলেছে। এরই ধারাবাহিকতায় ২৯ সেপ্টেম্বর রাত ১২টার পর থেকেই গ্রাহকদের প্রথম কলড্রপের বিপরীতে জিপি-জিপি টকটাইম ফেরত দেওয়া শুরু করেছে গ্রামীণফোন। জিপি-জিপি কলড্রপের কারণে সৃষ্ট অসুবিধার সম্মুখীন হওয়ায় গ্রাহকেরা এ টকটাইম পাবেন।

এর আগে কলড্রপ হলে গ্রাহককে ক্ষতিপূরণ দিতে মোবাইল অপারেটরদের নির্দেশ দেয় বিটিআরসি। এখন থেকে একই অপারেটরে কথা বলার সময় প্রথম কলড্রপ হলেই গ্রাহক ক্ষতিপূরণ পাবেন। আগামী ১ অক্টোবর থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে বলে গত সোমবার রাজধানীর রমনায় বিটিআরসি কার্যালয়ে কলড্রপ ও ক্ষতিপূরণ নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানানো হয়।

ওই দিন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার অনলাইনে যুক্ত হয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘ক্ষতিপূরণটাই গুরুত্বপূর্ণ না। গ্রাহক যেন নির্বিঘ্ন সেবা পায়, সে উদ্দেশ্যেই এই নির্দেশনা জারি করা হচ্ছে। অপারেটররা যেন সেবার মান বাড়িয়ে ক্ষতিপূরণ থেকে রেহাই পান, বিটিআরসি সেটাই চাচ্ছে।’

বিটিআরসির সিস্টেমস অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাসিম পারভেজ নতুন নির্দেশিকার বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন। তাঁর উপস্থাপনায় বলা হয়, গ্রাহক এখন থেকে প্রথম ও দ্বিতীয় কল ড্রপের ক্ষেত্রে প্রতিটি কল ড্রপের জন্য ৩০ সেকেন্ড এবং তৃতীয় থেকে সপ্তম কল ড্রপের বেলায় প্রতিটি কল ড্রপের জন্য ৪০ সেকেন্ড টকটাইম ফেরত পাবেন। ফেরত পাওয়া টকটাইম পরের দিন থেকে ব্যবহার করা যাবে এবং এই টকটাইম শেষ না হওয়া পর্যন্ত গ্রাহকের কোনো টাকা কাটা যাবে না। কল ড্রপের ক্ষতিপূরণের বিষয়ে গ্রাহককে এসএমএসের মাধ্যমে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জানাতে হবে। কোনো অপারেটর চাইলে কল ড্রপ হওয়ার দিন থেকে ক্ষতিপূরণ দিতে পারবে। কল ড্রপের ফেরত প্রাপ্ত টকটাইমের মেয়াদ হবে ১৫ দিন। বিটিআরসি বলেছে, ১০০ সেকেন্ড কল ড্রপের জন্য অপারেটররা ৩০৯ দশমিক ৪৪ সেকেন্ড ক্ষতিপূরণ দেবে।

যেকোনো অপারেটরের গ্রাহক এখন থেকে *১২১*৭৬৫# কোডের মাধ্যমে তার কল ড্রপের পরিমাণ জানতে পারবে। আগামী অক্টোবর থেকে এটা কার্যকর হবে।

ইমোতে চালু হয়েছে ‘ফ্যামিলি গার্ড’ সুবিধা

মাদারবোর্ড কি? মাদারবোর্ড এর বিভিন্ন অংশের নাম ও পরিচিতি

টেক টাইমস বিডি এর ফেসবুক পেজের লিংক

 

 

 

তথ্যসূত্র: প্রথম আলো

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!