জাপানে ভাল্লুকের আক্রমণ থেকে বাঁচতে রোবট নেকড়

জাপানে ভাল্লুকের আক্রমণ থেকে বাঁচতে রোবট নেকড়
জাপানে ভাল্লুকের আক্রমণ থেকে বাঁচতে রোবট নেকড়

জাপানের তাকিকাওয়া শহরে গেলে বিশাল আকৃতির একাধিক ‘মনস্টার উলফ’ স্থাপন করেছে। শহর কর্তৃপক্ষ ভয়ঙ্কর দর্শনের এসব রোবট নেকড়ে স্থাপন করেছে মূলত ভাল্লুক ঠেকানোর আধুনিক ব্যবস্থা হিসেবে।

দ্য ভার্জের খবরে বলা হয়েছে, ভাল্লুকের আক্রমণের ভয়ে সবসময় তটস্থ থাকতে হয় শহরটির বাসিন্দাদের। খাবারের খোঁজে প্রায়ই লোকালয়ে চলে আসে ভাল্লুক। গত বছর ১৫৭ জন ভাল্লুকের আক্রমণের শিকার হয়। এ বছর ডজনখানেক আক্রমণের ঘটনা ঘটেছে। রোবট নেকড়ে স্থাপনের পর থেকে ভাল্লুকের আক্রমণের কোনো ঘটনা শহরটিতে ঘটেনি।

জাপানের নেকড়ে রোবটের মধ্যে ভাল্লুকের মনে ভয় ধরানোর মতো নানা বৈশিষ্ট্য রয়েছে। রোমশ আকৃতির শরীরের বিশাল এই রোবটকে হিংস্র দেখানো জন্য রয়েছে লাল চোখ। রোবটটি মাথা ঘুরাতে পারে এবং উচ্চ আওয়াজে নেকড়ের ডাক থেকে শুরু করে নানা ধরনের আওয়াজ করতে পারে।

দেশটির মধ্য ও উত্তরাঞ্চলে একসময় কালো ভাল্লুক এবং নেকড়ের বিচরণ থাকলেও, শিকার ও বাস্তুসংস্থান প্রতিযোগিতায় ১০০ বছর আগেই নেকড়ে বিলুপ্ত হয়ে গেছে। তাই বর্তমান ভাল্লুক সমস্যা প্রতিরোধে জাপানকে নির্ভর করতে হচ্ছে নেকড়ের রোবটের ওপর।