লাইফস্টাইল

বাসার কোন জিনিস কতদিন ব্যবহার করবেন?

জিনিসপত্রের মেয়াদ শেষের তারিখ সবসময় নিখুঁত হয় না, তাই আপনাকেই এ ব্যাপারে সচেতন থাকতে হবে। অবশ্য এটাও সঠিক যে, কোনো জিনিসপত্রের মেয়াদ শেষ হওয়া মানে এটা নয় যে, তা পরিষ্কার বা মেরামত করলে আরো কয়েক বছর স্থায়ী হবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অব হোম বিল্ডার্সের একটি রিপোর্ট এবং অনলাইন বিশেষজ্ঞ সূত্রে এ প্রতিবেদনে বাসায় নিয়মিত ব্যবহার করা হয় এমন কিছু জিনিসপত্র কতদিন পর পরিবর্তন করবেন, সে তথ্য দেয়া হলো।

* টুথব্রাশ: ৩-৪ মাস

* বালিশ: ১-২ বছর

* মেকআপ ব্রাশ: ১-২ বছর (নিয়মিত ধুয়ে রাখুন)

* বাইক হেলমেট: ৩-৫ বছর

* ক্যান ওপেনার: ৪-৬ বছর

* গাড়ির টায়ার: ৬ বছর অথবা ক্ষতিগ্রস্ত না হওয়া পর্যন্ত

* রান্নার নন-স্টিক আইটেম: ৫ বছর

* ভ্যাকুয়াম ক্লিনার: ৫-৭ বছর

* গদি (বিছানা): ৭ বছর

* পাওয়ার স্ট্রিপ বা মাল্টি প্লাগ: প্রায়ই কিভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে তার ওপর নির্ভর করে। তবে সাধারণত ২-৭ বছর।

* টোস্টার: ৬-৮ বছর (যদি ভালোভাবে পরিষ্কার করা হয়ে থাকে)

* মাইক্রোওভেন: ৯ বছর

* গাড়ির সিট: ৬-১০ বছর

* কার্পেট: ৮-১০ বছর

* স্মোক ডিটেক্টর: ১০ বছর

* ডিসওয়াশার মেশিন: ১০-১১ বছর

* ওয়াশিং এবং ড্রায়ার মেশিন: ১৫ বছর

* এয়ার কন্ডিশনার (এসি): ১০-১৫ বছর

* হেয়ার ড্রায়ার: ১০-১৫ বছর (যদি নিয়মিত পরিষ্কার করা হয়ে থাকে)

* ইন্টেরিয়র এবং এক্সটেরিয়র পেইন্ট: ১৫ বছর

* রান্নাঘরের কল বা বেসিনের কল: ১৫ বছর

* মার্বেলের কিচেন কাউন্টার টপ: ২০ বছর

* গোসলখানার আধুনিক কাচের দরজা: ২০ বছর

* লিনোলিয়াম মেঝে: ২০ বছর।

* রেফ্রিজারেটর: ১৫-৩০ বছর।

* কিচেন ক্যাবিনেট: ৫০ বছর পর্যন্ত।

* ভিনাইল মেঝে: ৫০ বছর।

* প্লামিং: ২৫-১০০ বছর (কি ধরনের উপাদানে নির্মিত, তার ওপর নির্ভর করে)।

* গোসলের শরীর মাজুনি: ৬ মাস।

তথ্যসূত্র: বিজনেস ইনসাইডার

টেক টাইমস বিডি

টেক টাইমস বিডি ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিয়ে প্রযুক্তি বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতেঃ এখানে ক্লিক করুন
টেক টাইমস বিডি ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুনঃ টেক টাইমস বিডি ফেসবুক পেজের লিংক
টেক টাইমস বিডি ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করতেঃ এখানে ক্লিক করুন এবং তথ্য প্রযুক্তির আপডেট ভিডিও দেখুন।
গুগল নিউজে টেক টাইমস বিডি সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন।
তথ্য প্রযুক্তির আপডেট খবর পেতে ভিজিট করুন www.techtimesbd.com ওয়েবসাইট।

এই বিভাগের আরও খবর

সম্পর্কিত খবর
Close
Back to top button
error: Content is protected !!