সর্বশেষঃ

ল্যাপটপ ও ডেস্কটপ কম্পিউটারের মাঝে পার্থক্য ?

ডেস্কটপ কম্পিউটার
১. ডেস্ক এর উপর রেখে কাজ করা হয় বলে এ ধরনের কম্পিউটারকে ডেস্কটপ কম্পিউটার বলা হয়।
২. ওজন তুলনাম–লকভাবে বেশি বিধায় সহজে বহন করা যায় না।
৩. তুলনা মুলকভাবে বেশি বিদ্যুৎ খরচ হয়।
৪. বিদ্যুৎ এর ব্যাকআপ হিসেবে কোন ব্যাটারি থাকে না।
৫. দাম তুলনামুলক কম।
৬. মাউসের পরিবর্তে টাচপ্যাড ব্যবহার করা যায় না।
৭. অনেক পার্টস আপগ্রেড করা যায়।
৮. স্থায়িত্ব বেশি।
৯. ল্যাপটপের চেয়ে বেশি তাপ উৎপন্ন হয়।
১০ নষ্ট হলে সহজে ঠিক করা যায়।

ল্যাপটপ কম্পিউটার
১. ল্যাপ বা কোলের উপর স্থাপন করে ব্যবহার করা যায় এমন ছোট আকারের কম্পিউটারকে ল্যাপটপ বলা হয়।
২. ওজন হালকা এবং সহজে বহন করা যায়।
৩. তুলনা মুলকভাবে বিদ্যুৎ কম খরচ হয়।
৪. সরাসরি বিদ্যুৎ এর সাথে যুক্ত করা ছাড়াও এর ব্যাটারির সাহায্যে কয়েক ঘণ্টা চলে।
৫. দাম তুলনামুলক বেশি।
৬. মাউসের পরিবর্তে টাচপ্যাড ব্যবহার করা যায়।
৭. অনেক পার্টস আপগ্রেড করা যায় না।
৮. তুলনামুলক ভাবে স্থায়িত্ব কম।
৯. ডেস্কটপের চেয়ে কম তাপ উৎপন্ন হয়।
১০. নষ্ট হলে সহজে ঠিক করা যায় না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!